1. [email protected] : Shafiqul Alam : Shafiqul Alam
  2. [email protected] : aminul :
  3. [email protected] : Bayezid :
July 26, 2021, 12:40 pm
শিরোনাম :
পঞ্চগড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শিশুর মৃত্যু পঞ্চগড়ে পাথর শ্রমিকদের জালে ধরা পড়ল ২৮ কেজির বাঘাইড় মাছ পঞ্চগড়ে জ্বরের সিরাপ সেবন করে বড় ভাইয়ের মৃত্যু, ছোট ভাইয়ের অবস্থা আশংকাজনক পঞ্চগড়ে পুকুরের পানিতে পড়ে এক শিশুর মৃত্যু পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন স্থাপনে ধীরগতি পঞ্চগড়ে মোটর সাইকেলের ধাক্কায় এক পথচারী নিহত, আহত দুই ইলাকে ভোট দিতে পঞ্চগড়ে মতবিনিময় সভা পুলিশি পাহাড়ায় ৭ মুসল্লির ঈদুল আযহার নামাজ আদায় পিএম পাড়ায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্যোগে করোনায় সৃষ্ট পরিস্থিতিতে অতি দরিদ্র ও অসহায়দের মধ্যে খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করোনায় মারা যাওয়া ব্যাক্তিদের পরিবারের খোঁজ নিলেন জেলা প্রশাসক, জানালেন ঈদ শুভেচ্ছা

পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৪২ জনের করোনা সনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ০১

আবু সালেহ মো রায়হান
  • Update Time : Saturday, July 3, 2021
  • 77 Time View

বিশেষ প্রতিনিধি
পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘন্টায় একদিনে নতুন করে ৪২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্তের রেকর্ড করা হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২৩ জন, তেতুঁলিয়ায় ৬ জন, আটোয়ারীতে ১০ জন এবং বোদায় ২ জন এবং দেবীগঞ্জে ১ জনের করোনা সনাক্ত হয়। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ১৪৪ জন। জেলায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু সংখ্যা দাড়িয়েছে ২৬ জনে। জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৮৪৫ জন এবং মারা গেছেন ২৬ জন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ২৭৪ জন। গত জুন মাসে মোট আক্রান্ত হয় ২৩০ জন। চলতি মাসে মোট আক্রান্ত ৭৩ জন এবং চলতি বছরে মোট আক্রান্ত ৩৭৫ জন। ১৪৭টি নমুনা সংগ্রহ করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পাঠানোর পর ৪২ জনের করোনা পজেটিভ আসে। ১৪৭ টি নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে করোনা শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ। সিভিল সার্জন ডা. মো ফজলুর রহমান শনিবার সকালে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি আরো জানান, পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে আবুল হোসেন (৭০) নামে এক সাবেক বিজিবি সদস্যের মৃত্যু হয়েছে । শনিবার দুপুরে তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথেই মারা যান তিনি। তার বাড়ি বোদা পৌরসভা এলাকার জামাদার পাড়া এলাকায়। তিনি ওই এলাকার মৃত চাঁন মামুনের ছেলে। আবুল হোসেন গত দশদিন থেকে জ্বর-সর্দি ও শরীরের ব্যাথায় ভূগছিলেন। পরে গত ২৭ জুন তিনি বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে এসে নমুনা দিলে এন্টিজেন পরীক্ষায় তার করোনা পজেটিভ হয়। এরপর থেকে তিনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধীনে নিজ বাড়িতে থেকেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে শনিবার সকাল থেকে তার জ্বর, শরীরের ব্যাথা ও শারিরিক অসুস্থতা বেড়ে গেলে দুপুর ২টার দিকে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্রে জানা যায়, গত জুন মাসের শুরু থেকে পঞ্চগড়ে নমুনা পরীক্ষা এবং করোনা সনাক্তের হার বৃদ্ধি পেয়েছে। এর আগে পরীক্ষা এবং সনাক্ত তেমন ছিল না। এ পর্যন্ত জেলায় ৬ হাজার ৪২৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা আইইডিসিআর, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে এবং পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে র‌্যাপিট এন্টিজেন টেষ্ট পরীক্ষায় ৬ হাজার ১৩৬ জনের ফলাফল এসেছে। সব মিলিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ১৪৪ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৪৯৫ জন, তেতুঁলিয়ায় ১৪৮ জন, আটোয়ারীতে ১৫৬ জন, বোদায় ১৬৪ জন এবং দেবীগঞ্জে ১৮১ জন। এ পর্যন্ত জেলায় করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছে ৮৪৫ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৩২৬ জন, তেতুঁলিয়ায় ৯৬ জন, আটোয়ারীতে ১২০ জন, বোদায় ১৪০ জন এবং দেবীগঞ্জে ১৬৩ জন। এ পর্যন্ত জেলায় করোনায় মারা গেছে ২৬ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১৩ জন, তেতুঁলিয়ায় ০১ জন, আটোয়ারীতে ০৩ জন, বোদায় ০৪ জন এবং দেবীগঞ্জে ০৫ জন। পঞ্চগড় করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি আছে ৭ জন এবং হোম আইসোলেশনে আছে ২৬৭ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১৫৬ জন, তেতুঁলিয়ায় ৫১ জন, আটোয়ারীতে ৩৩ জন, বোদায় ২১ জন এবং দেবীগঞ্জে ১৩ জন।

পঞ্চগড় সিভিল সার্জন ডা. মো ফজলুর রহমান জানান, পঞ্চগড়ের গত ২৪ ঘন্টায় ১৪৭ টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ৪২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট ১ হাজার ১৪৪ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। গত জুন মাসে এবং চলতি মাসে পঞ্চগড়ে নমুনা পরীক্ষা এবং করোনা আক্রান্ত সনাক্ত দুটিই বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে কারো শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যায়নি। আমরা নমুনা সংগ্রহ করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পিসিআর ল্যাবে পাঠানোর পর সেখান থেকে আবারো নমুনা ঢাকায় আইইডিসিআরে পাঠানো হচ্ছে। সেখান থেকে তারা জানাবে কারো শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে কিনা।
তিনি আরো জানান, সর্দি, জ¦র, কাশি বা অন্য কোন উপসর্গ দেখা দিলেই সকলকে করোনা পরীক্ষার জন্য বলা হচ্ছে। এখানে কোন আইসিইউ নেই। তবে করোনা চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত জনবল এবং অক্সিজেনের সরবরাহের ব্যবস্থা রয়েছে। এ পর্যন্ত যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তারা সুস্থ আছেন এবং নিজ বাসাতেই হোম আইসোলেশনে আছেন। এজন্য সকলকে নিয়োমিত মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।


Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | PanchagarhNews.com পঞ্চগড়ে প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল
Tech supported by Amar Uddog Limited