1. [email protected] : Shafiqul Alam : Shafiqul Alam
  2. [email protected] : aminul :
  3. [email protected] : Bayezid :
May 26, 2022, 5:56 pm

পঞ্চগড়ে শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : Wednesday, March 30, 2022
  • 413 Time View

পঞ্চগড় প্রতিনিধি


পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় এক প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির ২য় শ্রেনীর এক ছাত্রের অভিভাবকদের বিরুদ্ধে। সোমবার (২৮) দুপুরে বিদ্যালয়ে এ ঘটনাটি ঘটে। ওই শিক্ষকের নাম বরুন কুমার রায়। তাঁর বাড়ি উপজেলার দন্ডপাল ইউনিয়নের কালিগঞ্জ এলাকায়। তিনি বর্তমানে উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের গাঁজোকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে কর্মরত রয়েছেন।
ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক বরুন কুমার রায় জানান, গেল সোমবার দুপুরে আমি প্রথম শ্রেণীতে ক্লাস নিচ্ছিলাম। পরে বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী জানায় স্কুলের দুইতলার ছাদে দুইজন ছাত্র মারামারি করছে। পরে তিনি ঘটনাটি দেখতে গেলে ছাত্র দুইজনই সিঁড়ি বেয়ে নিচে নেমে আসে। এসময় হাতে এক ছাত্র হালকা ব্যাথা পায়, তার হাতে একটি হালকা লাল দাগ দেখা যায়। পরে বাচ্চাটি স্কুল থেকে চলে যায়। ওই ছাত্রের বাড়ি টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের সর্দার পাড়া এলাকায়। পরে ওই ছাত্রের বাবা জিকু আহমেদ, চাচা দিপু আহমেদ ও দাদা বাবুল হোসেন স্কুলে এসে কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমার এলাপাতাড়ি মারধর করেন। শরীরের বিভিন্ন স্থানে কিলঘুষি মারেন। পরে তারা আমার মাটিতে ফেলে আমার বুকের উপর চড়ে বসেন। পরে পাশের এক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক আয়া ঘটনাটি দেখতে পেয়ে স্কুলের শিক্ষক সহ স্থানীয়দের জানালে তারা এসে আমাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সোমবার দুপুরেই দেবীগঞ্চ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে আমি মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরি। আমি ঘটনাটি আমার প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমাজের নেতাদের জানিয়েছি। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
গাঁজোকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সামসুল হক বলেন, আমি সে সময় যোহরের নামাজে গিয়েছিলাম। পরে এসে ঘটনাটি শুনলাম। আসলে ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।
বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমাজের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও রংপুর বিভাগীয় কমিটির সভাপতি এবং দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের কাজিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাহবুব হোসেন রাজু বলেন, আসলে মারধরের বিষয়টি ৭১ এর বর্বরতাকেও হার মানায়। এটা মেনে নেয়ার মত না। এ বিষয়ে আমি কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে কথা বলেছি। ওনারা বলেছেন, এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার না হলে তারা জাতীয় প্রেস ক্লাবে কেন্দ্রীয়ভাবে সংবাদ সম্মেলন করবেন।

দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল উদ্দিন বলে, বরুন রায় নামে এক শিক্ষককে মারধরের ঘটনাটি শুনেছি। তবে কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ঘটনাটি তদন্ত করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | PanchagarhNews.com পঞ্চগড়ে প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল
Tech supported by Amar Uddog Limited